Omicron new variant Covid 19 runny nose new symptoms

Omicron new variant Covid 19 runny nose new symptoms. The rapid surge in the number of Omicron cases has become a major source of concern. Several countries have been impacted and health officials around the world have urged people to take all necessary precautions. As per the World Health Organization (WHO), the new COVID variant continues to pose a ‘very high risk to the general population and could overwhelm healthcare systems.

In light of such chaos, scientists and medical professionals are closely observing the new variant and keeping an eye out for any new developments.

Join our Facebook Group Get job update & discuss about Job related Topics.

While most symptoms associated with the new COVID variants remain to be the same, there have been some new ailments reported in those infected with the Omicron, even in the fully vaccinated.

World on high alert after new COVID variant Omicron reported - CGTN

করোনার ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্ট পুরোবিশ্বেই আতঙ্ক ছড়াচ্ছে। একের পর এক ওমিক্রনের নতুন উপসর্গ আরও আতঙ্কিত করছে সবাইকে। সম্প্রতি ওমিক্রন আক্রান্তদের মধ্যে ভাইরাসের দুটি ‘অদ্ভুত’ লক্ষণ দেখা গেছে।

যদিও বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, ওমিক্রনের উপসর্গ অনেকটা মৃদু। সাধারণ জ্বর, সর্দি, কাশি, নাক দিয়ে জল পড়া, কিছুক্ষেত্রে গলার স্বর পরিবর্তন, রাতে ঘাম হওয়া কিংবা পেশি ব্যথা ইত্যাদি হতে পারে। এমনকি ওমিক্রনের প্রভাবে ফুসফুসে দীর্ঘমেয়াদী নিউমোনিয়াও হতে পারে বলে জানা গেছে!

এরই মধ্যে আবার জানা গেলো, ওমিক্রনের অদ্ভূত ২ লক্ষণ সম্পর্কে। হেলথলাইনের তথ্য অনুসারে, ওমিক্রন ভেরিয়েন্ট এনজিওটেনসিন-কনভার্টিং এনজাইম ২ (এসিই২) চোখের ভেতরে কিছু অংশে পাওয়া গেছে, যেমন- রেটিনা ও চোখের সাদা অংশে।

বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, শুধু নাক বা মুখ দিয়েই নয়, এই ভাইরাস প্রবেশ করতে পারে চোখের মাধ্যমেও। ওমিক্রন সংক্রণের ২ দিনের মধ্যেই রোগীর চোখ গোলাপি চোখ বা কনজেক্টিভাইটিস হতে পারে।

চিকিৎসকরা বলছেন, বাতাস থেকে নয় তো সংক্রমিত ব্যক্তির সংস্পর্শে এসেই চোখ ভাইরাসের সংক্রমণে আসতে পারে। তারা জানিয়েছেন, কনজাংটিভাইটিস চোখের নরম অংশ ও কর্নিয়াকে ধাক্কা দিতে পারে এটি। তার সঙ্গে চোখের পাতায় জমে থাকা ধুলাবালির সঙ্গে বিক্রিয়া করেও বাড়তে পারে সমস্যা।

এমনটি ঘটলে চোখ দিয়ে অনবরত পানি পড়া কিংবা এগুলো ছাড়াও দক্ষিণ আফ্রিকা থেকেই চিকিৎসকরা জানিয়েছেন চোখের পাতা ফুলে যাওয়া ও নিচের অংশ অসম্ভব চুলকানো অনুভূত হতে পারে। জানা গেছে, ওমিক্রনে আক্রান্ত প্রায় ১০ শতাংশ মানুষ এ সমস্যায় ভুগছেন।

ওমিক্রনের আরও একটি লক্ষণ হলো অত্যাধিক চুল পড়া। আমেরিকান একাডেমি অব ডার্মাটোলজি অ্যাসোসিয়েশনের মতে, চুল পড়া কোভিডের একটি সাধারণ লক্ষণ। দীর্ঘদিন জ্বরে ভুগলে চুল পড়তে পারে। সংক্রমণের শেষের দিকে এই লক্ষণ প্রকাশ পাওয়ার সম্ভাবনা বেশি।

ওমিক্রনের প্রধান উপসর্গ কী কী?

কোভিডের প্রধান লক্ষণগুলোর মধ্যে একটি হলো কাশি। সাম্প্রতিক তথ্য অনুসারে, ওমিক্রন কোভিডের ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের তুলনায় মৃদু অসুস্থতার কারণ হতে পারে। বিশেষ করে যারা টিকা নিয়েছেন তাদের ক্ষেত্রে।

প্রত্যেকেরই এখন ওমিক্রনের প্রধান লক্ষণগুলো সম্পর্কে সচেতন হওয়া উচিত। করোনার প্রধান লক্ষণগুলো হলো- একটানা কাশি, স্বাদ ও গন্ধ হ্রাস এবং জ্বর। অন্যদিকে ওমিক্রনের উপসর্গ হিসেবে প্রকাশ পেয়েছে- শরীরে র্যাশ, নাক দিয়ে পানি পড়া, ক্লান্তি, হাঁচি, পিঠের নিচের দিকে ব্যথা, মাথাব্যথা, রাতে ঘাম ও পেশিতে ব্যথা।

বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, ওমিক্রন ভাইরাসের সংস্পর্শে আসার দুই দিনের মধ্যে এই লক্ষণগুলো দেখা দিতে পারে। সিম্পটম ট্র্যাকার অ্যাপ জোয়ের বিজ্ঞানী প্রফেসর টিম স্পেক্টর জানিয়েছেন, ওমিক্রনের লক্ষণগুলো সর্দি-কাশির মতোই। তাই সর্দি-কাশির সমস্যায় ভুগলে আইসোলেশনে থাকুন ও কোভিড পরীক্ষা করুন।

সূত্র: মিরর ইউকে/নিউজ ডট কম/দ্য সান

শেয়ার করতে নিচের বাটন এ ক্লিক করুন : ⬇

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button